কিভাবে মাসে ২০০০০ টাকা ইনকাম করবো | অনলাইনে আয় করার সহজ পদ্ধতি ২০২২

কিভাবে মাসে ২০০০০ টাকা ইনকাম করবো | অনলাইনে আয় করার সহজ পদ্ধতি  ২০২২

আজ আমি আপনাদের সাথে বিস্তারিত বলবো কিভাবে অনলাইনে প্রতি মাসে 20 হাজার টাকা ইনকাম করা যায়। আশা করি এই পোস্টটি পড়লে আপনি অবশ্যই উপকৃত হবেন।

আমাদের বিশ্বে প্রযুক্তি এত দ্রুত অগ্রসর হচ্ছে এবং এর সাথে মানুষের অনলাইনে কাজ করার প্রবণতা বাড়ছে তাই অনলাইনে নিজের ইচ্ছামত সময়ে অর্থ উপার্জন করার মাধ্যম সম্পর্কে জানতে পারবেন। অনলাইন থেকে আয় করার অনেক ধরনের পদ্ধতি আছে এবং অনলাইন থেকে আয় করার জন্য রয়েছে হাজার হাজার টাকা উপার্জন করার বিভিন্ন উপায় আমি আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করার চেষ্টা করবো।

এই পোস্টের আলোচ্য বিষয়বস্তু সমূহ-

  • ফ্রিল্যান্সিং কাকে বলে ?
  • ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে ইনকাম করার পদ্ধতি 
  • কিভাবে CPA মার্কেটিং এর মাধ্যমে আয় করা যায় ?
  • CPA মার্কেটিং এর পূর্ণ রূপ কি ?
  • কিভাবে Affiliate Marketing  করে অর্থ উপার্জন করা যায় ?
  • Affiliate Marketing  কাজের সমস্ত উপায়
  • অনলাইন ব্যবসা কি?
  • অনলাইনে ব্যবসা করে অর্থ উপার্জনের উপায় ?
  • কিভাবে ওয়েব ডিজাইন থেকে অর্থ উপার্জন করা যায় ?

SEO (এসইও) করে অর্থ উপার্জন করার পদ্ধতি

সর্বপ্রথম যে বিষয়টি শেয়ার করব সেটি হলো, ঘরে বসে অনলাইনে মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম

ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে ইনকাম

ফ্রিল্যান্সিং কি? সহজভাবে বলতে গেলে, ফ্রিল্যান্সিং এমন একটি পেশা যার মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে আপনার ইচ্ছামত সময় নির্ধারণ করে স্বাধীনভাবে অনলাইনে কাজ করে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন

ফ্রিল্যান্সিংয়ের প্রক্রিয়ায়, অনলাইনের মাধ্যমে বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস এর উৎস খুঁজে বের করে নিজের সুবিধা অনুযায়ী কাজ করে থাকা তাই এই মার্কেটপ্লেস গুলোর ফ্রিল্যান্সিং এর সাথে জড়িত।  যারা এই কাজের উৎস অনলাইনে মার্কেটপ্লেসে কাজ করে তাদেরকে ফ্রিল্যান্সিং বলা হয়।

আর্টিকেল লিখে ইনকাম করুন

আপনি কিছু ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস সম্পর্কে ধারণা পাবেন এবং আমি আপনার সাথে শেয়ার করব।

বর্তমানে ফ্রিল্যান্সিং করে আমাদের দেশের হাজার হাজার তরুণ-তরুণী থেকে শুরু করে বৃদ্ধ মানুষ পর্যন্ত ঘরে বসে আয় করছে ফ্রিল্যান্সিং মাধ্যমটিকে আরো বেশি জনপ্রিয় করে তোলার লক্ষ্যে সরকারি এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠান গুলো কোর্স ও ট্রেনিং এর মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সিং শেখানো হয়ে থাকে ।

এই কোর্সগুলোর মাধ্যমে অনেকেই ফ্রিল্যান্সিং এর সঠিক প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে জীবনে সফলতা অর্জন করেছে এবং অনলাইনে তারা ইনকাম করছে লাখ লাখ টাকা।

সিপিএ মার্কেটিং করে ইনকাম (CPA)

এইটা একটি অনেক বড় মার্কেটপ্লেস যেখানে ফ্রিল্যান্সাররা মাসে হাজার হাজার টাকা ইনকাম করছে

 আপনি যদি সিপিএ মার্কেটিং করতে চান তাহলে আপনার অবশ্যই জানা দরকার CPA মানে।

সিপিএ (CPA) মানে হলো; Cost Per Action.

CPA মার্কেটিং হলো বিশ্বের অন্যতম সেরা অনলাইনে আয় করার সঠিক পদ্ধতি। এই মার্কেটপ্লেসে আপনি বিভিন্ন ধরনের কাজ পাবেন এবং আপনি যদি সঠিক ভাবে সঠিক নিয়ম মেনে কাজগুলো সম্পন্ন করতে পারেন তাহলে আপনার কাজের বিনিময়ে আপনাকে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ কমিশন দেওয়া হবে। একটু সহজ ভাবে যদি বলি, যার মাধ্যমে আপনি সাধারণত ইচ্ছামতো যেকোনো একটি কাজ নির্বাচন করে এবং কোম্পানীর জন্য বিভিন্ন ধরনের লিড সংগ্রহ করার মাধ্যমে একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ ডলার আয় করতে পারবেন।

সিপিএ মার্কেটিং এর 99 % কাজগুলো মূলত আপনার নির্দিষ্ট একটি অ্যাফিলিয়েট লিঙ্ক তারা দিয়ে থাকবে, আপনার লিংকে ক্লিক করে সেই লিঙ্কের মাধ্যমে যদি কেউ সাইন আপ করে এবং সেখানে তারা তাদের তথ্য যেমন নাম এবং ইমেইল লিখে দিলে আপনি সেখান থেকে ওই সমপরিমাণ কিছু ডলার উপার্জন করতে পারবেন।

অনলাইন থেকে ইনকাম করার জন্য এই কাজগুলো খুবই সহজ এবং ডলারের পরিমাণ অনেক বেশি। আপনি সিপিএ মার্কেটিং কাজের জন্য যে লিড গুলো সংগ্রহ করবেন এই কাজগুলো মূলত কিছু নির্দিষ্ট দেশ সীমাবদ্ধতা থাকবে।

Affiliate Marketing করে  ইনকাম

বর্তমান যুগে অ্যাফিলিয়েট (Affiliate) মার্কেটিং ফ্রিল্যান্সারদের জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় মার্কেটপ্লেস হিসেবে বিবেচনা করা হয়। আপনি যদি সঠিক উপায়ে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং শিখেন তাহলে আপনি অবশ্যই আপনার ঘরে বসে প্রতি মাসে 20 হাজার টাকা এবং আরও বেশি আয় করতে সক্ষম হবেন।

বিশেষ করে যাদের ওয়েবসাইট ওয়ার্ডপ্রেস বা ব্লগার সাইট আছে তাদের জন্য এই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কাজটি খুবই লাভজনক এবং সহজ হবে।

এর কারণ হলো আপনি যদি কোনো প্রতিষ্ঠানের (Affiliate Marketing Program) অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং প্রোগ্রামের সাথে জড়িত থাকেন, তাহলে সেই প্রতিষ্ঠানের পণ্য বিক্রি বা বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য একটি অ্যাফিলিয়েট লিঙ্ক প্রদান করা হয়। সেই লিঙ্কের সাহায্যে আপনি এটি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস বা ব্লগার ওয়েবসাইটে যোগ করতে পারেন এবং যদি কোনো ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইট দেখার পর সেই অ্যাফিলিয়েট লিঙ্কে ক্লিক করে এবং সেই প্রতিষ্ঠানের পণ্যটি কিনে নেয়, তাহলে আপনি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ ডলার কমিশন পাবেন। এবং এই কাজগুলো অনলাইনের মাধ্যমে হয়ে থাকে।

অনলাইন ব্যবসার মাধ্যমে ইনকাম

সর্বপ্রথম আমরা জানবো অনলাইন ব্যবসা কি? অনলাইন ব্যবসা হলো সেই সমস্ত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান যা ঘরে বসে ভার্চুয়ালের মাধ্যমে অনলাইন ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করে।

আজকাল অনলাইন ব্যবসার চাহিদা মানুষের মধ্যে খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। আপনি অবশ্যই জানবেন এই বিশ্বের যতগুলো বড় বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আছে, তার মধ্যে Online Business অনলাইন ব্যবসাটা সবক্ষেত্রেই স্থান দখল করেছে। হাতের কাছে এই অনলাইনটা কে কাজে লাগিয়ে, কিছু অল্প পরিমাণ পুঁজি নিয়ে আপনার পছন্দের ব্যবসাটা অনলাইনের মাধ্যমে  শুরু করতে পারেন।

অনলাইন ব্যবসার একটি সেরা দিক হলো যে  আপনি অল্প পুঁজি দিয়ে আপনার নিজের ব্যবসা শুরু করতে পারবেন এবং আপনি অল্প সময়ের মধ্যেই আপনার ব্যবসার উন্নতি করতে পারেন। অনলাইনে আপনার ব্যবসার প্রচার খুব দ্রুত জনসাধারণের কাছে ছড়িয়ে পড়বে।  

ওয়েব ডিজাইন থেকে ইনকাম

বর্তমান বিশ্বে ওয়েব ডিজাইনের চাহিদা অনেক বেশি এবং ওয়েবসাইটের চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলেছে সেই সাথে প্রতি জনের কাছে একাধিক ওয়েবসাইট রয়েছে, তাই বুঝতে পারছেন ওয়েবসাইটের চাহিদা কতটা। বর্তমান ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস গুলোতে ওয়েব ডিজাইন সেক্টর গুলোর গতি বাড়ছে ও ব্যাপক জনপ্রিয়তার সাথে অনেক বেশি দাপট রয়েছে।

একজন প্রফেশনাল ওয়েব ডিজাইনার হতে হলে আপনাকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে ও সঠিক গাইডলাইন অনুসরণ করে ধৈর্যের সাথে ওয়েব ডিজাইন শিখতে হবে। একজন ভাল মানের ওয়েব ডিজাইনার হতে হলে আপনাকে অবশ্যই HTML, CSS, JavaScript, PHP কোডিং ও ডিজাইনিং দুটোতেই ভালোভাবে দক্ষ হতে হবে।  

তাই যারা সঠিক গাইডলাইন অনুসরণ করে প্রফেশনাল ওয়েব ডিজাইনার হয়েছে, তারা এই ওয়েব ডিজাইন সেক্টর গুলোতে ফ্রিল্যান্সিং করছে, তারা ওয়েব ডিজাইনের প্রতিটা কাজের জন্য $100 ডলার থেকে শুরু করে $1000 ডলার পর্যন্ত ওয়েব ডিজাইন করে ইনকাম করছে।

ফেসবুক থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় 

এসইও (SEO) করে ইনকাম

অনেক ফ্রিল্যান্সার Search Engine optimization (SEO) এসইও করে প্রতি মাসে (Minimum) ন্যূনতম 20-30 হাজার টাকা আয় করেন 

একটি ওয়েবসাইট সঠিকভাবে তৈরি করার পর সেই ওয়েবসাইটে এসইও করতে হয়। এসইও করার মাধ্যমে একটা ওয়েবসাইট এবং ওয়েবসাইটের পোস্টগুলো  অল্প সময়ের মধ্যে রেঙ্ক করতে সাহায্য করে।

তাই বর্তমানে ওয়েবসাইট তৈরীর চাহিদা দিন দিন বাড়ার কারণে এই ওয়েবসাইটগুলোতে (SEO) এসইও করার চাহিদাও অনেক বেশি বেড়েছে কারন একটা ওয়েবসাইট (SEO) এসইও না করলে, সে ওয়েবসাইট কখনোই (Google First Page) গুগোল ফাস্ট পেজে আসতে পারবে না এবং ওয়েবসাইটের বিভিন্ন বিষয়গুলো (Rank) রেঙ্ক ও করবে না।  

ডিজিটাল মার্কেটিং এর একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হলো (SEO) এসইও। তাই বড় বড় কোম্পানিগুলো থেকে শুরু করে অতি ক্ষুদ্র কোম্পানিগুলো ওয়েবসাইট এসইও করার জন্য Big amount টাকা দিয়ে এসইও এক্সপার্ট খুঁজে থাকেন এবং তাদের ওয়েবসাইটে এসইও করে নেন।

I Will Share Important Some Details

আমি আগেই বলেছি আপনি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস সম্পর্কে ধারনা পাবেন তাই এখন আমি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস সম্পর্কে কিছু বিবরণ শেয়ার করব।  বর্তমান বিশ্বের জনপ্রিয় কিছু Freelancing Marketplace যেখানে হাজার হাজার প্রফেশনাল ফ্রিল্যান্সাররা কাজ করছে এবং তারা এই মার্কেটপ্লেস গুলোতে তাদের পেশাগত জীবিকা নির্বাহ করে।

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় কিছু ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস

  1. FIVERR

  2. UPWORK

  3. FREELANCER
  4. GURU
  5. TOPTAL
  6. PEOPLE PER HOUR
  7. FLEXJOBS

  8. SIMPLYHIRED

  9. 99 DESIGNS

  10. AQUENT

আশা করি একজন ভিজিটরের এই পোস্টটি ভালো লাগবে এবং প্রতিমাসে অনলাইন থেকে 20 থেকে 30 হাজার টাকা ইনকাম করার সঠিক উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারছেন।

আপনি যে সেক্টর থেকে অর্থ উপার্জন করতে চান সেই সেক্টরে অবশ্যই কঠোর পরিশ্রম ও সঠিক গাইডলাইন সহ নিজের ধর্য্য দিয়ে (Professionally) কাজ শিখবেন এবং কখনো হাল ছেড়ে দিবেন না, বরাবর লেগে থাকবেন আর প্রতি নিয়ত (Practice) অনুশীলন করবেন।