বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা মহামারীর জন্য প্রস্তুত থাকতে বলল 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা মহামারীর জন্য প্রস্তুত থাকতে বলল 
সংগৃহীত ছবি

বিশ্ব মহামারি করোনা ভাইরাসের তাণ্ডব থেকে এখনও মুক্তি পায়নি । এই ভাইরাসের তাণ্ডবে স্থির হয়ে পড়েছে বিশ্বের  অর্থনীতি। কাজ হারিয়েছেন অসংখ্য মানুষ বেকারত্ব জীবনযাপন করছে। 

সফল কোনও  প্রতিষেধক না থাকায় মহামারী করোনা থেকে উত্তরণের পর আবার সংক্রমণের শিকার হচ্ছে  সারা পৃথিবী। প্রতিদিন'ই বিশ্বজুড়ে মারা যাচ্ছেন হাজারও মানুষ এবং লাখ লাখ মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন এই প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে কারণে। 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রোস আধানম গেব্রিয়েসুস বলছেন, 'এটাই আমাদের শেষ  মহামারি নয়। ইতিহাস শিক্ষা দিয়েছে বার'বার আমাদের মহামারির আগমন খুবই স্বাভাবিক ঘটনা। তাই আমাদের এখন থেকে বড় প্রস্তুতি নিতে হবে, যাতে এরপর বড় মহামারি আসবে, তখন আমরা এর চেয়ে বেশি পরিসরে প্রস্তুত থাকতে পারি।'

বিশ্বের স্বাস্থ্য'সংস্থার প্রধান,তিনি এখন থেকেই সকল দেশগুলিকে জন'স্বাস্থ্যে জোর দিতে অনুরোধ করছেন। আরও জানান তিনি, 'জনস্বাস্থ্য সামাজিক, অর্থনৈতিক এবং রাজনৈতিক সু-স্থিরতার ভিত্তি। 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান বিশ্বের সকল দেশ গুলোর কাছে অনুরোধ করে বলেছেন যে, 'দয়া করে স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় আরও বেশি বিনিয়োগ করতে হবে।বিশেষ বিশেষ করে প্রাথমিক স্বাস্থ্যে, যাতে আমরা নতুন কোন রোগ সহজেই শনাক্ত করে সহজে তা প্রতিরোধ করতে পারি।'

উল্লেখ্য যে, বৈশ্বিক করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় " ২ কোটি ৭৭ লাখ ৩৮ হাজার" ছাড়িয়েছে। আর এই মহামারিতে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৯ লাখ।

পরিসংখ্যান ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, বুধবার (৯ সেপ্টেম্বর) সকাল পর্যন্ত সকল দেশ মিলিয়ে বিশ্বের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু ৯ লাখ ১ হাজার ৮৬৯ জন এবং আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ৭৭ লাখ ৩৮ হাজার ৯৭১ জন মানুষ। তার মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ১ কোটি  ৯৮ লাখ ৩২ হাজার ৬৯০ জন।

আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিতীয় অবস্থানে এবং মৃতের সংখ্যা তৃতীয় অবস্থানে আছে ভারত। দেশ'টির মধ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৩ লাখ ৭০ হাজার ১২৮ জন , মারা গেছেন ৭৩ হাজার ৯২৩ জন। সূত্র: আল-জাজিরাহিন্দুস্তান টাইমস, ওয়ার্ল্ডওমিটার

বিডি বাংলার নিউজ/রাকিব