আজ হিন্দু সম্প্রদায়ের সরস্বতী পূজা

আজ  হিন্দু সম্প্রদায়ের সরস্বতী পূজা
সরস্বতী দেবী

হিন্দু'দের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব শ্রীশ্রী সরস্বতী পূজা মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি)। সনাতন ধর্মীয় বিশ্বাস অনুযায়ী জ্ঞান ও বিদ্যার অধিষ্ঠাত্রী দেবী সরস্বতী ভক্তদের মানবীয় চেতনায় উদ্দীপ্ত করতে প্রতি বছর ধরাধামে আবির্ভূত হন। ঢাক-ঢোল-কাঁসর-শঙ্খ ও উলু ধ্বনি বাজিয়ে মুখরিত হয়ে উঠবে বিভিন্ন পূজামণ্ডপ।

শাস্ত্রমতে, প্রতি বছর মাঘ মাসের শুক্লপক্ষের পঞ্চমী তিথিতে শ্বেতশুভ্রা কল্যাণময়ী বিদ্যাদেবী সরস্বতীর পুজো করা হয়। শ্বেতশুভ্র বসনা সরস্বতী দেবীর এক হাতে বেদ, অপর আর এক হাতে (পাণি) বীণা থাকে। তাকে বীণাপাণিও বলা হয়। এছাড়া  সকল গৃহস্থ বাড়িতেও দেবী সরস্বতী পুজোর আয়োজন করা হয়। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই ছাত্র ছাত্রীরা, স্কুল,  কলেজে সরস্বতী পুজোর আয়োজন করে থাকেন।

জেনে নিন বাড়িতে সরস্বতী পুজোর পদ্ধতি


সরস্বতী পুজোর জন্য যা প্রয়োজন

* দেবী সরস্বতীর মূর্তি বা ছবি
* পরিষ্কার সাদা কাপড়
* ফুল - পদ্ম, ও জুঁই ফুল হলে খুব ভালো
* আম পাতা ও বেল পাতা
* হলুদ, সিঁদুর, অল্প চাল, পাঁচ রকমের ফল যার মধ্যে নারকেল এবং কলা থাকতেই হবে।
* কলস, পান পাতা, সুপারি, ধুপকাঠি
* কালি ও দোয়াত

জেনে নিন দেবীর আরাধনার মন্ত্র ও বিধি, সরস্বতী পুজোর পদ্ধতি

যারা সরস্বতী পুজো করবেন, তাঁকে অবশ্যই সকালে উঠে স্নান সেরে নিতে হবে। স্নান করার পূর্বে গায়ে নিম ও হলুদ বাটা মেখে নিতে পারলে খুবই ভালো। পুজোর আগে নিম ও হলুদ বাটা গায়ে  মেখে স্নান করলে শরীর ও মন শুদ্ধ হয়। এরপর যে স্থানে মূর্তি স্থাপন করবেন, সেখান এ পরিষ্কার করে পিঁড়ির ওপর সাদা কাপড় পাতুন। সেখানে দেবী সরস্বতীর মূর্তি স্থাপন করুন ও তার সামনে ঘট বসান। ঘটে জল ভরে তার ওপর আম্রপত্র রাখুন, এর ওপর দিন একটি পান পাতা। পুজোর স্থান হলুদ, কুমকুম, চাল ও ফুল, মালা দিয়ে সাজিয়ে ফেলুন। দেবী সরস্বতীর এক পাশ বই, দোয়াত ও কলম রাখুন।

কী ভাবে জন্ম হয় দেবী সরস্বতীর! গল্পটা জানা আছে?

আপনি যদি সঙ্গীত বা নৃত্যকলার সঙ্গে সংযুক্ত হন তাহলে বাদ্যযন্ত্রও পুজোর স্থানে রাখতে পারেন। শিল্পীরা তাঁদের আঁকার তুলি সরস্বতীর এক পাশে দেবীর কৃপাদৃষ্টির জন্য রাখতে পারেন। দেবী সরস্বতীর সামনে কিছু শুকনো রং অবশ্যই রাখবেন। সরস্বতীর পাশে দিকে স্থাপন করুন গণেশের মূর্তিও। এরপর সরস্বতী পুজোর মন্ত্র পাঠ করুন। প্রদীপ জ্বালিয়ে দেবী সরস্বতীকে ভোগ নিবেদন করতে হবে। বেলপত্র ও আম্রপত্র নিবেদন করুন দেবী সরস্বতীকে।

এরপর দেবী সরস্বতীর মূর্তির সামনে নিঃশব্দে ধ্যানে বসতে হবে এবং তাঁকে আপনার মধ্যে আহ্বান জানান। এরপর প্রণাম সেরে পুজোর প্রসাদ মুখে দিয়ে উপবাস ভঙ্গ করতে হবে।