আজকে বিকাশ রেফারে মেগা পুরস্কার ২০২১ ! Bikash Offer 2021

আজকে বিকাশ রেফারে মেগা পুরস্কার ২০২১ ! Bikash Offer 2021

বিকাশ নতুন অ্যাকাউন্ট অফার 2021

আপনি একটি বিকাশ নতুন অ্যাকাউন্টের জন্য নিবন্ধন করার মাধ্যমে সেরা বিকাশ অফার ২০২১ পাবেন। আপনি নতুন একাউন্ট খোলার সাথে সাথে থাকছে 50-251 টাকা পর্যন্ত বোনাস যা শুধু মাত্র বিকাশ অফিসিয়াল অ্যাপ ব্যবহার করে নতুন গ্রাহকরা উপভোগ করতে পারবেন। 

  • ১ম সপ্তাহে ৩ বার অ্যাপে লগ ইন করলে ১০ টাকা বোনাস 
  • ২য় সপ্তাহে মোবাইল রিচার্জ করলে ১৫ টাকা পর্যন্ত বোনাস
  • ৩য় সপ্তাহে কুইজ খেলে সঠিক উত্তর দিলে ১০ টাকা বোনাস
  • ৪র্থ সপ্তাহে ১৫ টাকা সেন্ড মানি করলে ১৫ টাকা বোনাস
  • ৫ম সপ্তাহে যেকোনো লেনদেনে ২৫ টাকা বোনাস
  • ৬ষ্ঠ সপ্তাহে পেমেন্ট করলে ৩০ টাকা বোনাস
  • ৭ম সপ্তাহে পে বিল করলে ৩৫ টাকা বোনাস
  • ৮ম সপ্তাহে যেকোনো লেনদেনে ৪০ টাকা বোনাস
  • নতুন একাউন্ট খুলে অ্যাপ লগ ইন করলেই ৭১ টাকা বোনাস পাবেন।
  • প্রথমবার অ্যাপে লগ ইন করলে ২০ টাকা বোনাস

এছাড়া নতুন Bkash account থেকে কেনাকাটা করলে থাকছে নিশ্চিত উপহার 

 

এই লিংকে বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড করুন।

বিকাশ অ্যাপ রেফার করলে কত টাকা পাবেন জেনে নিন – 

এখন বিকাশ অ্যাপ রেফার করলেই জিতবেন মোটরবাইক, ল্যাপটপ, স্মার্টফোন ও দারুণ সব বোনাস! তাই সময় শেষ হবার আগেই বিকাশ অ্যাপ রেফার করুন, নতুন গ্রাহক বিকাশ অ্যাপে একটি লেনদেন করলেই আপনি জিতে নিতে পারবেন আকর্ষণীয় এই পুরস্কারগুলো! সাথে নিশ্চিত ১০০ টাকা বোনাস তো থাকছেই!

কিভাবে Bkash App-এ রেফার করবেন -

1. রেফারেল লিঙ্ক শেয়ার করতে "রেফার করুন" বোতামে ট্যাপ করুন
2. রেফারেল লিঙ্কটি এসএমএস, সোশ্যাল মিডিয়া, চ্যাট অ্যাপ ইত্যাদির মাধ্যমে সম্ভাব্য নতুন ব্যবহারকারীদের সাথে শেয়ার করা যেতে পারে।
3. উল্লেখিত ব্যক্তিকে বিকাশ অ্যাপে লগ ইন করতে সহায়তা করুন।
4. উল্লেখিত ব্যক্তিকে বিকাশ অ্যাপ থেকে লেনদেন করতে সহায়তা করুন। আরও জানতে, এখানে আলতো চাপুন.

আপনি নতুন কোন গ্রাহককে বিকাশ অ্যাপ রেফার করলে পাবেন ১০০ টাকা অথাৎ যে গ্রাহক এখনও পর্যন্ত বিকাশ অ্যাপ তার সিমে ব্যবহার করেনি সেই গ্রাহকের জন্য এটি প্রযোজ্য।

অফারের শর্ত ও নিয়মাবলী

বিকাশ অ্যাপ থেকে যিনি লিংক রেফার করবেন তিনি পাবেন ১০০ টাকা বোনাস এবং আপনি যাকে রেফার করেছেন তিনি বিকাশ অ্যাপে প্রথমবার লগইন করার পর প্রথম লেনদেন করলে ২০ টাকা বোনাস ও প্রথমবার ২৫ টাকা রিচার্জ করলে ৫০ টাকা বোনাস পাবে।

অফারটি চলবে ১১ নভেম্বর থেকে ৩১ ডিসেম্বর, ২০২১ পর্যন্ত।

এছাড়াও এখন বিকাশ অ্যাপ রেফার করে প্রতিদিন সবচেয়ে বেশি গ্রাহক এনে প্রথম ৩ জন জিতে নিন অতিরিক্ত ২,০০০ টাকা বোনাস। তবে এই অফার পাবার জন্য কমপক্ষে ৫টি সফল রেফার সম্পূণ করতে হবে।

এই অফার সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে বিকাশ-এর লিংক ভিজিট করুন 

 

Bkash Cashback Offer 2021

গ্রাহকরা তাদের ভিসা এবং মাস্টারকার্ডের ডেবিট কার্ড থেকে বিকাশ অ্যাকাউন্টে 24/7 টাকা যোগ করতে পারবেন কোনো খরচ ছাড়াই। মহামারীতে আরও সুবিধার জন্য, বিকাশ ভিসা এবং মাস্টারকার্ডের ডেবিট এবং ক্রেডিট কার্ড উভয় থেকে ‘অ্যাড মানি’-তে 50 থেকে 500 টাকা পর্যন্ত তিনটি ক্যাশব্যাক অফার নিয়ে এসেছে।

বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমে প্রথমবারের মতো ভিসা বা মাস্টারকার্ড থেকে নিজের বা অন্য বিকাশ অ্যাকাউন্টে 1000 টাকা বা তার বেশি 'অ্যাড মানি' করলে গ্রাহক 100 টাকা ক্যাশব্যাক পেতে পারেন। অফারটি 17 মে, 2021 পর্যন্ত বৈধ। একজন গ্রাহক ক্যাম্পেইন চলাকালীন শুধুমাত্র একবারই ক্যাশব্যাক পেতে পারেন। লেনদেনের পরবর্তী 2-3 কার্যদিবসে গ্রাহকের অ্যাকাউন্টে ক্যাশব্যাকের পরিমাণ পাঠানো হবে। গ্রাহকরা অফারের বিস্তারিত ওয়েবসাইটে জানতে পারবেন

যে সমস্ত গ্রাহকরা 2020 সালে বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমে বিকাশ অ্যাকাউন্টে ভিসা বা মাস্টারকার্ড থেকে অর্থ যোগ করেছেন, কিন্তু 1লা জানুয়ারি থেকে 12ই এপ্রিল 2021 পর্যন্ত পরিষেবাটি পাননি, তারা ভিসা থেকে 1000 টাকা বা তার বেশি 'অ্যাড মানি' করলে 100 টাকা ক্যাশব্যাক পেতে পারেন। অথবা বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমে মাস্টারকার্ড। এই অফারটি 17 মে 2021 পর্যন্ত বৈধ থাকবে। একজন গ্রাহক ক্যাম্পেইন চলাকালীন শুধুমাত্র একবার অফারটি নিতে পারবেন এবং লেনদেনের পরবর্তী কার্যদিবসে গ্রাহকের অ্যাকাউন্টে ক্যাশব্যাকের পরিমাণ পাঠানো হবে। আরও বিশদ ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে: 

এছাড়াও, গ্রাহকরা বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমে ভিসা বা মাস্টারকার্ড থেকে 4500 টাকার ‘অ্যাড মানি’ করলে 500 টাকা পর্যন্ত 50 টাকা ইনস্ট্যান্ট ক্যাশব্যাক পেতে পারেন। গ্রাহক 4,500 টাকা অ্যাড মানি করার পর প্রতিবার 50 টাকা ক্যাশব্যাক পান, যার মানে তিনি 10 বারে 500 টাকা পর্যন্ত ক্যাশব্যাক পেতে পারেন। এই অফারটি 17 মে 2021 পর্যন্ত চলবে। বিস্তারিত জানার জন্য, গ্রাহকরা ওয়েবসাইট দেখতে পারেন।

এই সমস্ত অফারের অধীনে ক্যাশব্যাক বিকাশ অ্যাকাউন্টে পাওয়া যাবে যেখানে 'অ্যাড মানি' করা হয়েছে। ক্রেডিট কার্ড থেকে বিকাশে টাকা যোগ করার ক্ষেত্রে, কিছু নির্দিষ্ট ব্যাঙ্কের দ্বারা চার্জ প্রযোজ্য হতে পারে। গ্রাহক বিস্তারিত জানতে ব্যাঙ্কের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

বিকাশ নিবন্ধন প্রক্রিয়া

বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলা এখন একেবারেই সহজ ! বর্তমানে এয়ারটেল, বাংলালিংক, টেলিটক, গ্রামীণফোন এবং রবি সংযোগে বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলার সুবিধা রয়েছে। আপনার নিজের ঘরে বসেই নতুন অ্যাপ থেকে বিকাশ অ্যাকাউন্ট খুলতে নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন !

 

ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন পয়েন্টে বিকাশ ই-কেওয়াইসি এর মাধ্যমে একটি বিকাশ অ্যাকাউন্ট খুলুন:

বিকাশ অ্যাকাউন্ট খুলতে আপনার নিকটস্থ ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন পয়েন্টে নিচের আইটেমগুলি নিয়ে আসুন:

  1. মোবাইল ফোন
  2. জাতীয় পরিচয়পত্রের মূল কপি

 

এজেন্ট পয়েন্টে বিকাশ অ্যাকাউন্ট খুলতে:

  • আশেপাশের বিকাশ এজেন্টে যান
  • মোবাইল ফোন
  • NID মূল কপি এবং ফটোকপি
  • এক কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি

কাস্টমার কেয়ারে বিকাশ অ্যাকাউন্ট খুলুন:

  • সাথে কাছাকাছি কাস্টমার কেয়ারে যান
  • মোবাইল ফোন
  • NID (ফটোকপি) / ড্রাইভিং লাইসেন্স (মূল এবং ফটোকপি) / পাসপোর্ট (মূল এবং ফটোকপি)
  • এক কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি

অ্যাকাউন্ট খোলার ফর্মটি পূরণ করুন এবং আপনার থাম্ব প্রিন্ট এবং স্বাক্ষর সঠিকভাবে রাখুন

অ্যাকাউন্ট খোলার প্রথম ধাপের পর, আপনাকে আপনার বিকাশ মোবাইল মেনু সক্রিয় করতে হবে। আপনার মোবাইল মেনু সক্রিয় করতে নীচের পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করুন-

  1. *247# ডায়াল করে বিকাশ মোবাইল মেনুতে যান
  2. "মোবাইল মেনু সক্রিয় করুন" চয়ন করুন
  3. আপনার বিকাশ অ্যাকাউন্টের জন্য একটি 5 সংখ্যার পিন লিখুন
  4. নিশ্চিত করতে পিন পুনরায় লিখুন৷

* অনুগ্রহ করে আপনার পিন সব সময় গোপন রাখুন।

 

এই পদক্ষেপগুলি সফলভাবে অনুসরণ করার পরে, আপনার মোবাইল নম্বরটি আপনার বিকাশ অ্যাকাউন্ট নম্বর হয়ে যাবে। প্রাথমিকভাবে আপনি আপনার নতুন বিকাশ অ্যাকাউন্টে ক্যাশ ইন, মোবাইল রিচার্জ এবং টাকা রিসিভ পরিষেবা ব্যবহার করতে পারবেন। যাইহোক, আপনার KYC ফর্ম যাচাইকরণ সম্পন্ন হওয়ার পরে (3-5 কার্যদিবসের মধ্যে), আপনি ক্যাশ আউট, মোবাইল রিচার্জ, পেমেন্ট করতে এবং বিকাশের অন্যান্য সমস্ত পরিষেবা উপভোগ করতে পারবেন। আপনার অ্যাকাউন্ট সম্পূর্ণ সক্রিয় হয়ে গেলে, *247# ডায়াল করুন এবং সপ্তাহের 7 দিন 24 ঘন্টা বিকাশ পরিষেবা উপভোগ করুন। গ্রাহকরা কাস্টমার কেয়ার সেন্টার বা কাস্টমার কেয়ার থেকে অ্যাকাউন্ট খুললেই সমস্ত পরিষেবা পেতে সক্ষম হবে