ফ্রিল্যান্সারদের উপার্জনের টাকা বিকাশে এনে লুফে নিন আকর্ষনীয় অফার ২০২২ । ফ্রিল্যান্সিংয়ের টাকা বিকাশে আনুন

ফ্রিল্যান্সারদের উপার্জনের টাকা বিকাশে এনে লুফে নিন আকর্ষনীয় অফার ২০২২ । ফ্রিল্যান্সিংয়ের টাকা বিকাশে আনুন

সকল ফ্রিল্যান্সারদের জন্য নতুন একটি সু-সংবাদ নিয়ে এসেছে বিকাশ। ফেব্রুয়ারি মাসে ১০ তারিখ থেকে বিকাশ নতুন একটি কার্যক্রম চালু করেছেন। তাই যারা নিজেদের ফ্রিল্যান্সিং করার টাকা বিকাশের মাধ্যমে আনবে তাদের জন্য বিকাশ রেখেছে আকর্ষণীয় অফার। আপনি যদি একজন ফ্রিল্যান্সার হয়ে থাকেন তাহলে এই অফারটি রয়েছে আপনার জন্য। 

 

সাধারণতঃ ফ্রিল্যান্সাররা তাদের Payoneer একাউন্ট থেকে ব্যাংকে টাকা পাঠাতেন। তবে এখন থেকে আপনি আপনার ফ্রিল্যান্সিং করার টাকা ডলার থেকে সরাসরি বিকাশের মাধ্যমে টাকা পাঠাতে পারবেন। কোন রকম ঝামেলা ছাড়াই কোনরকম ভোগান্তিতে পড়তে হবে না।

 

এখন আর ব্যাংক থেকে টাকা তোলার ঝামেলা থাকছে না। আপনি খুব সহজে এবং দ্রুত তার সাথে পেওনার থেকে বিকাশে টাকা পাঠাতে পারবেন। কিন্তু তার জন্য আপনাকে সবার সর্বপ্রথম জানতে হবে কিভাবে পেওনার থেকে বিকাশে টাকা ট্রান্সফার করা যায়। 

 

তবে যারা প্রতিদিন লেনদেন করবেন তাদের ২% নিশ্চিত অফার থাকবে ১৬ই ফেব্রুয়ারি এবং সাথে আরও থাকছে স্মার্টফোন জেতার সুযোগ।  কিন্তু অফারটি একের অধিক প্রতিদিন নিতে পারবেন না। ধরেন একেক দিন একেক জন অফার নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন।

 

তবে তার আগে আমাদের জানতে হবে পেওনিয়ার টা আসলে কি?

 

পেওনিয়ার হচ্ছে "একটি আমেরিকান আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান, যা অনলাইন লেনদেন এবং ডিজিটাল লেনদেন পরিষেবা প্রদান করে" 

কিভাবে পেওনিয়ারে একাউন্ট তৈরি করবেন?

পেওনিয়ার একাউন্ট তৈরি করা খুবই সহজ। অ্যাকাউন্টটি তৈরি করার পূর্বে কিছু জিনিস আমাদের হাতের কাছে রাখতে হবে।

১। আপনার ভোটার আইডি কার্ড অথবা ড্রাইভিং লাইসেন্স অথবা পাসপোর্ট লাগবে। 

২। একটি জিমেইল অ্যাকাউন্ট লাগবে। 

৩। বাংলাদেশের যে কোন ব্যাংকে একটি অ্যাকাউন্ট খোলা লাগবে। 

মনে করেন আপনি ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসে কাজ করছেন। কিন্তু আপনার কোন ভোটার আইডি কার্ড অথবা ড্রাইভিং লাইসেন্স অথবা পাসপোর্ট নেই।  সে ক্ষেত্রে আপনি আপনার বাবা-মা অথবা বড় ভাই বা বোনের ভোটার আইডি কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স অথবা পাসপোর্ট দিয়ে একাউন্ট খুলতে পারবেন। 

অ্যাকাউন্ট তৈরি করার পর আপনি আপনার ইউজারনেম এবং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে অ্যাকাউন্টে লগইন করতে পারবেন।আপনার আবেদনটি পেওনার চেক করবে এবং সবকিছু ঠিক থাকলে ৪-৫ দিনের মধ্যেই আপনার ইমেইলে একটি মেইল পাঠানো হবে যে আপনার একাউন্টটি ব্যবহারের জন্য অনুমোদিত হয়েছে। 

পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা নেওয়ার নিয়মঃ 

যারা পেওনার থেকে বিকাশে কিভাবে টাকা নিবেন তা জানেন না। তাদের জন্য নিচে কিছু নিয়ম তুলে ধরা হলোঃ 

১। সর্বপ্রথম আপনাকে আপনার বিকাশ এপ এ লগইন করতে হবে। 

২। তারপর সেবা সমূহ থেকে রেমিটেন্স অপশন সিলেক্ট করুন। 

৩। এবার পেওনার অপশন সিলেক্ট করুন। 

৪। পেওনার একাউন্ট খোলা না থাকলে, একাউন্ট তৈরি করে নিন।  এবং একাউন্ট থাকলে সেটা তে লগইন করুন। 

পেওনার থেকে বিকাশে টাকা নেওয়ার কিছু শর্তাবলীঃ

★ বিকাশ গ্রাহক তার সক্রিয় পেওনিয়ার ক্ষেত্রে পর্যাপ্ত ব্যালেন্স থাকা সাপেক্ষে বিকাশ একাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করলে ইনস্ট্যান্ট বোনাস পাবেন। 

★বোনাস পেতে হলে গ্রাহকের অ্যাকাউন্টে স্ট্যাটাস ও ইনকামিং লেনদেন অবশ্যই সক্রিয় থাকতে হবে। যদি গ্রাহকের অ্যাকাউন্টে স্ট্যাটাসের ইস্যুজনিত কারণে বোনাস বিতরণে ব্যর্থ হলে, সেক্ষেত্রে গ্রাহক এই অফারটি পাবে না।

★ গ্রাহকের একাউন্টের স্ট্যাটাস ইস্যুজনিত কারন ছাড়া যদি অন্য কোন অজানা/ অপ্রকাশিত কারনে বোনাস বিতরন ব্যর্থ হয়, সেক্ষেত্রে ক্যাম্পেইন শেষ হওয়ার ২ মাসের মধ্যে পর পর ৩ বার বোনাস বিতরনের চেষ্টা করবে। 

★বোনাস পেতে অফার চলাকালীন বিকাশ অ্যাপ থেকে পেওনিয়ার একাউন্ট থেকে বিকাশ একাউন্টে সফলভাবে টাকা আনতে হবে। 

★সকল উপায় ই যদি ব্যর্থ হয়, তবে আর কোন চেষ্টা চালিয়েও লাভ হবে না। গ্রাহক অফারটি নিতে পারবে না। 

★বিকাশ কোনো পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই যেকোনো উপায়ে ক্যাম্পেইনের নিয়ম ও শর্তাবলি, মার্চেন্ট/ আউটলেটের অংশগ্রহণ পরিবর্তন/সংশোধন বা যেকোনো সময় সম্পূর্ণ ক্যাম্পেইন বাতিল করার অধিকার সংরক্ষণ করে।

★যদি মার্চেন্ট কোনো সেবার প্রাপ্যতা ও ডেলিভারি নিশ্চিত করতে না পারে, সেক্ষেত্রে বিকাশ তার দায়ভার নেবে না, বিকাশ কেবল গ্রাহকের কাছে পেমেন্ট সেবা সরবরাহ করে। মার্চেন্ট গ্রাহককে কোনো সেবা সঠিকভাবে প্রদান করতে না পারার কারণে যদি মূল্য ফেরত দেয় এবং তাহলে বিকাশ ঐ নির্দিষ্ট লেনদেনের জন্য গ্রাহকের বোনাস লিমিট পুনর্বহাল করতে বাধ্য নয়। গ্রাহক বোনাস অফারটি গ্রহণ করেছেন বলে ধরে নেওয়া হবে।

★কোনো নির্দিষ্ট লেনদেন এবং/অথবা গ্রাহকের লেনদেন কার্যক্রম যদি এরূপ কোনো যুক্তিসংগত সংশয় তৈরি করে যে, গ্রাহক কর্তৃক উক্ত বোনাস সুবিধার অপব্যবহার হয়েছে, সেক্ষেত্রে বিকাশ এবং অংশগ্রহণকারী মার্চেন্ট গ্রাহকের বোনাস সুবিধা বাতিলের অধিকার সংরক্ষণ করে।

পেওনিয়ার থেকে স্মার্টফোন জিতার সুযোগ 

নিম্নের শর্তাবলী গুলো মেনে একজন গ্রাহক প্রতিদিন স্মার্টফোন জিততে পারবে। আপনাদের সুবিধার্থে নিচে বিস্তারিত উল্লেখ করা হলো।

★অফারটি চলবে ১০ ফেব্রুয়ারি-১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২২ পর্যন্ত।

★বিকাশ গ্রাহক তার সক্রিয় পেওনিয়ার একাউন্ট থেকে বিকাশ একাউন্টে সর্বোচ্চ পরিমাণ টাকা ট্রান্সফার করে একটি স্মার্টফোন জিতে নিতে পারবেন।

★একজন গ্রাহক একদিনে অন্তত ১৫,০০০  টাকা পেওনিয়ার থেকে বিকাশ একাউন্টে আনলে স্মার্টফোন জিতে নেয়ার সুযোগ পাবেন।

★যদি একাধিক গ্রাহক সর্বোচ্চ একই পরিমাণ টাকা এনে থাকেন তাহলে বিজয়ী নির্বাচন করা হবে সময়ভিত্তিক অগ্রাধিকার বিবেচনায়।

*একজন গ্রাহক সর্বোচ্চ ১বার পুরস্কার পাবেন।

* বিকাশ অ্যাপ চ্যানেল। 

*অফারটির মেয়াদ শেষ হওয়ার পরে বিজয়ীদের তালিকা ঘোষণা করা হবে।

*বিজয়ী অফারটির মেয়াদ শেষ হওয়ার ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে প্রয়োজনীয় যাচাই-বাছাই সম্পন্ন হওয়ার পর পুরস্কার বুঝে পাবেন।

ফ্রিল্যান্সারদের প্রতি লেনদেনে ২% বোনাস

বিকাশ গ্রাহক পেওনার থেকে বিকাশ একাউন্টে টাকা টান্সফার করলে প্রতি লেনদেনে ফ্ল্যাট টু পার্সেন্ট ইনস্ট্যান্ট বোনাস পাবে। কিন্তু অফারটি চলবে 10 ফেব্রুয়ারি থেকে 10 মার্চ 2022 পর্যন্ত।

অন্যদিকে অফার চলাকালীন লেনদেনের কোন লিমিট নেই।

আবার পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা আসতে ব্যাংকের তুলনায় অনেক সময় কম লাগবে। কয়েক সেকেন্ডের ভিতর আপনার পেওনিয়ার $ বিকাশে টান্সফার হয়ে যাবে মনে কনভার্ট হয়ে যাবে,সেটা এখনো নিশ্চিত না কিন্তু এমনটা আশা করা যাচ্ছে।

সুতরাং আপনার যদি জরুরি টাকা দরকার হয় তাহলে পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা তোলার সুবিধাটি ভালো একটি বিকল্প পথ হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। 

আশা করি এর মাধ্যমে কিভাবে পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা ট্রান্সফার করতে পারবেন সেটা বুঝতে পেরেছেন। কমেন্ট বক্সে আপনার মতবাদ অবশ্যই জানাবেন।

@বিডি_বাংলার_নিউজ